ধনবাড়ীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত: মার্চ ৭, ২০২০

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে বড় ঝোপনা গ্রামে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে একই গ্রামের সুজন মিয়ার বিরুদ্ধে। এরপর বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য চাপ দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে মেয়েটির পরিবার। স্কুলছাত্রীর মায়ের ভাষ্যমতে, গত ০২ মার্চ বিকেলে আমার মেয়ে স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে আসে। পরবর্তীতে সালামের ছেলে সুজন মিয়া (২০) কলম কিনে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রতিবেশি নিহাজ উদ্দিন মিলনের বাড়ীতে নিয়ে যায়। বাড়ীতে একা পেয়ে সেখানে জোড়পূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় সুজন মিয়া। মেয়েটি বাড়িতে ফিরে এলে ঘটনাটি তার পরিবারকে জানায়। এ বিষয়ে মেয়েটির মা আরও বলেন, আমরা হত দরিদ্র হওয়ায় প্রভাবশালী একটি মহল বিষয়টি আপোষ মিমাংসার জন্য চাপ দিয়ে আসছে। প্রভাবশালীদের চাপের মুখে আমার মেয়েকে হাসপাতালে নিতে দিচ্ছে না। মেয়েটি বর্তমানে গুরুত্বর অসুস্থ্য অবস্থায় রয়েছে। এ বিষয়ে মেয়েটির চাচা বলেন, মেয়েটি এখন আমার হেফাজতে রয়েছে এ বিষয়ে ধনবাড়ী ওসির সাথে আমার কথা হয়েছে। আমি এর কঠিন শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে, মুশুদ্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ফটু মুঠোফোনে বলেন, আমি ঘটনাটি জানি, তবে এখন পর্যন্ত বিচারের ব্যাপারে আমার সাথে কেউ কথা বলেনি। এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে, ধনবাড়ী থানা অফিসার ইনচার্জ চান মিয়া সাপ্তাহিক জাহাজমারাকে বলেন, গত কয়েকদিন আমি ছুটিতে ছিলাম তাই এ বিষয়ে আমার জানা নেই বলে তিনি জানান।